দুই শরিক দলের মুখোমুখি মহাজোটের প্রার্থী

প্রতিনিধি, মানিকগঞ্জ ১০ ডিসেম্বর, ২০১৮

মমতাজ বেগম, আবদুল মান্নান, গোলাম সারোয়ারএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন ছিল গতকাল রোববার। মানিকগঞ্জ-২ আসনে মহাজোটের পক্ষ থেকে আওয়ামী লীগের প্রার্থীকে চূড়ান্ত মনোনয়ন দেওয়া হয়। তবে একই আসনে মহাজোটের অপর দুই শরিক দল জাতীয় পার্টি ও বিকল্পধারা বাংলাদেশের দুই প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেননি। এই দুই প্রার্থী দলগতভাবে নির্বাচনে অংশ নেবেন বলে জানা গেছে।

দলীয় এবং জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, সিঙ্গাইর ও হরিরামপুর উপজেলা এবং জেলা সদরের তিনটি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত মানিকগঞ্জ-২ আসনে মহাজোটের প্রধান দল আওয়ামী লীগের বর্তমান সাংসদ মমতাজ বেগম, শরিক দল জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য এস এম আবদুল মান্নান এবং বিকল্পধারা বাংলাদেশের প্রেসিডিয়াম সদস্য গোলাম সারোয়ার মিলন মনোনয়নপত্র জমা দেন।

এই আসনে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মঈনুল ইসলাম খান এবং সিঙ্গাইর উপজেলা পরিষদের পদত্যাগী চেয়ারম্যান আবিদুর রহমান খান বিএনপি থেকে মনোনয়নপত্র জমা দেন। মইলুল ইসলাম খানকে চূড়ান্ত দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হলে দলের অপর মনোনয়নপ্রত্যাশী আবিদুর রহমান খানের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়। কাজেই এই আসনে ঐক্যফ্রন্টের একমাত্র প্রার্থী মঈনুল ইসলাম খান।

তবে এই আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ছাড়াও মহাজোটের শরিক দল জাতীয় পার্টি ও বিকল্পধারা বাংলাদেশের প্রার্থী রয়েছেন। গতকাল শেষ দিনে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার না করায় এই আসনে মহাজোটের তিন শরিক দলের প্রার্থী এখন নির্বাচনে মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছেন।

মহাজোটের তিন শরিক দলের প্রার্থীদের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার বিষয়ে কথা বলতে গতকাল রাতে বর্তমান সাংসদ মমতাজ বেগম এবং জাতীয় পার্টির আবদুল মান্নানের মুঠোফোনে একাধিকবার কল করা হয়। তবে তাঁরা ফোন ধরেননি।

জানতে চাইলে গোলাম সারোয়ার বলেন, ‘যে উদ্দেশ্যে মহাজোটের সৃষ্টি হয়েছে, তা ঠিক থাকবে। তবে কিছু কিছু আসনে দলগতভাবে মহাজোটের একাধিক শরিক দলের প্রার্থী নির্বাচনে অংশ নেবে। নির্বাচন বানচাল করতে ষড়যন্ত্র করছে বিএনপি। আমরা মহাজোট ভোটের মাঠে একসঙ্গে থাকতে চাই।’

এই আসনে আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি ও বিকল্পধারা বাংলাদেশের প্রার্থী ছাড়াও বাংলাদেশ তরীকত ফেডারেশনের ফেরদৌস আহম্মেদ আসিফ এবং ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মোহাম্মদ আলী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

মন্তব্য

  • image

    নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

    ১০ ডিসেম্বর, ২০১৮

    We do not know the current politics of AL.Loose decision.

সব মন্তব্য