না জানিয়ে দলীয় প্যাডে মোকাব্বিরের চিঠি!

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা ০১ এপ্রিল, ২০১৯

মোকাব্বির খানগণফোরামের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সিলেট-২ আসন থেকে নির্বাচিত মোকাব্বির খান দলীয় সিদ্ধান্তে শপথ নেবেন বলে জানিয়েছেন। তবে তাঁর দল গণফোরাম বলছে, তিনি দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে শপথ নিচ্ছেন। তা ছাড়া দলের প্যাড ‘চুরি’ করে মোকাব্বির স্পিকারকে চিঠি পাঠিয়েছেন বলেও অভিযোগ করা হয়েছে।

আজ সোমবার বেলা তিনটায় গণফোরামের প্যাডে পাঠানো চিঠিতে দু-এক দিনের মধ্যে শপথ নেওয়ার আগ্রহের কথা জানান মোকাব্বির। স্পিকার তাঁকে আগামীকাল মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় শপথ গ্রহণের জন্য সময় দিয়েছেন। শপথের বিষয়ে মোকাব্বির খান প্রথম আলোকে বলেন, ‘দলীয় সিদ্ধান্তেই আগামীকাল শপথ নিচ্ছি।’

এ বিষয়ে গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী প্রথম আলোকে বলেন, ‘দলীয় সিদ্ধান্ত হচ্ছে শপথ না নেওয়ার। কেন্দ্রীয় কমিটির সিদ্ধান্ত এটা। আমাদের কেন্দ্রীয় কমিটির আরেকটি মিটিং আছে। তার আগেই উনি এটা কেন করলেন, বুঝলাম না। দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করেই তিনি শপথ নিচ্ছেন। উনি যা বলছেন তা সঠিক না।’

শপথ নিতে গণফোরামের প্যাডে চিঠি পাঠানোর বিষয়ে সুব্রত চৌধুরী বলেন, মোকাব্বির খান গণফোরামের প্যাড ‘চুরি’ করে সেই কাগজে স্পিকারের কাছে চিঠি পাঠিয়েছেন। মোকাব্বিরের বিষয়ে কী ধরনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে? জানতে চাইলে তিনি বলেন, পরে বৈঠক করে তা জানানো হবে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মোকাব্বির খান জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের হয়ে দলীয় প্রতীক উদীয়মান সূর্যে নির্বাচন করেন। এবারের নির্বাচনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট আটটি আসনে জয়লাভ করে। তাঁর মধ্যে বিএনপি ছয়টি ও গণফোরাম দুটি আসন পায়। গণফোরামের আরেক সদস্য সুলতান মনসুর মৌলভীবাজার-২ আসন থেকে ধানের শীষ প্রতীকে লড়ে নির্বাচিত হন। গত ৭ মার্চ তিনি শপথ নেন। দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে শপথ নেওয়ায় তাঁকে গণফোরাম থেকে বহিষ্কার করা হয়। ৭ মার্চ মোকাব্বির খানেরও শপথ নেওয়ার কথা ছিল। তবে তাঁর আগের দিন তিনি সে সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন।

মন্তব্য

  • image

    Asif

    ০১ এপ্রিল, ২০১৯

    চুরি করা যে রাজনীতিবিদদের স্বভাব সেটা বারবার প্রমাণিত হচ্ছে।

  • image

    নাসিম

    ০১ এপ্রিল, ২০১৯

    হালুয়া রুটির রাজনীতি

  • image

    Hassan

    ০১ এপ্রিল, ২০১৯

    ক্ষমতার কেন্দ্রে যাবার লোভ সামলানো বড়ই কঠিন একই সাথে নৈতিকতা বিসর্জন দেয়া বড়ই সহজ।

  • image

    রাজিব

    ০১ এপ্রিল, ২০১৯

    অসততা নিয়ে এরা সংসদে গিয়ে জনগনের জন্য কাজ করবে -এই কথা বিশ্বাস করার কোন কারন আছে?

    • image

      Shapnik Roy

      ০২ এপ্রিল, ২০১৯

      এই সংসদ কি সৎভাবে গঠিত না কি?? So what do u expect???

  • image

    msIqbal

    ০১ এপ্রিল, ২০১৯

    এই নেতার ভবিষ্যত তো অতি ফর্সা! এই নেতাকে অবশ্যই জাতীয় রাজনীতিতে সুযোগ করে দেয়া উচিত!

  • image

    Bangladesh white party-BWP(সাদা দল)

    ০১ এপ্রিল, ২০১৯

    শপথ Game!!!

  • image

    নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

    ০১ এপ্রিল, ২০১৯

    গণফোরামে গন্ডগোল

  • image

    ABDUL MAJID QUAZI

    ০২ এপ্রিল, ২০১৯

    বিসমিল্লায়ই গলদ । এদের মতো .. দেশের আইন প্রণেতা হলে দেশের মানুষের চরিত্রের তথা সামাজিক অবক্ষয় হবে না কেন।

  • image

    নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

    ০২ এপ্রিল, ২০১৯

    আরেকটা জাতীয় ...এর নাম মোকাব্বির, শত ধিক যে নিজের সত্তাকে বিসর্জন দেয়....

  • image

    নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

    ০২ এপ্রিল, ২০১৯

    সাংবাদিকদের উচিৎ দেখা যে, উনি কতো টাকা পেয়ে এই কাজটা করতে যাচ্ছেন!

    • image

      Shubhro Ahmed

      ০৩ এপ্রিল, ২০১৯

      টাকা পেতেই হবে? গনফোরাম তথা ঐক্যফ্রন্টের মূল সিদ্ধান্ত অনুযায়ীই তো তিনি নির্বাচনে নেমেছিলেন। নিজের জন্য যথেষ্ট খাটুনি এবং প্রচার চালিয়েছিলেন। এবং তাতে সুফল পেয়েছেন। নির্বাচনের ফলাফলের পর ঐক্যফ্রন্টের সাথে লেপ্টে গিয়ে গনফোরামের এই হাল হবার পর গনফোরাম আত্মমর্যাদার জলাঞ্জলি দিয়ে বিএনপি'র কথায় উঠবস করতে থাকবে সেটা কে জানতো! মোকাব্বির খান ঠিক কাজটিই করেছেন। নিজ দলকে যথেষ্ট সময় দিয়েই তিনি শপথ নিয়েছেন।

  • image

    নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

    ০২ এপ্রিল, ২০১৯

    যতক্ষণ না বহিষ্কার হচ্ছেন ততক্ষণ তো তিনি তাঁর দলের দাপ্তরিক কাগজ ব্যবহার করতেই পারেন। সেটিতে কোন সমস্যা হবার কথা নয়। তবে তিনি যে জানিয়েছেন তাঁর দলের কোন আপত্তি নেই সেটিতে সমস্যা থাকতে পারে। অর্থাৎ তিন অসত্য বলছেন নাকি দল থেকে এই মূহুর্তে আপত্তি প্রকাশ করা হলো সেটাই দেখার বিষয়। আর হুট করে যে নির্বাহি সভাপতি বলে দিলেন 'চুরি'র কথা তাতে কিন্তু বোঝা যায় যে দল মোকাব্বির খানকে আজ বের করে দিয়েছে বলেই অমন শব্দটি উচ্চারণ করার সাহস পেয়েছে।

    • image

      আলিমুজ্জামান

      ০২ এপ্রিল, ২০১৯

      ঠিক বলেছেন

  • image

    Toushik Ahmed

    ০২ এপ্রিল, ২০১৯

    চলিতেছে সার্কাস

  • image

    Sohel S.parvez

    ০২ এপ্রিল, ২০১৯

    কি আর হবে,মোকাব্বির সাহেব বহিষ্কার হবেন।ছল চাতুরির দরকার ছিল না।গণফোরামের অবস্থা যাই থাকুক না কেন তাদের দলীয় সিদ্ধান্ত সংসদে না যাওয়া, এই নিয়ে কারো সন্দেহ নেই।খামখা জল ঘোলা করলেন।এখনও রাজনীতি তে উনি এমন কেউ না যে প্রভাব রাখতে পারবেন।আওয়ামী লীগ,বিএনপি নির্বাচনে আসলে এখনও তার জামানত থাকবে না।

  • image

    Jahidul Islam

    ০২ এপ্রিল, ২০১৯

    আজ শপথ নিচ্ছেন গণফোরামের মোকাব্বির খান। ড.কামালের নির্দেশে ইনি শপথ নিচ্ছেন। বিএনপির ৬ জন কি করবে?

  • image

    Imran hossain

    ০২ এপ্রিল, ২০১৯

    দেরিতে হলেও সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

  • image

    রাজিব

    ০২ এপ্রিল, ২০১৯

    গণফোরাম থেকে এই ধরনের বক্তব্য দেয়ার পর স্পিকারের উচিত হবে না মোকাব্বিরকে শপথ পড়ানো।

    • image

      নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

      ০২ এপ্রিল, ২০১৯

      উচিত শব্দ টা সবার জন্য না ভাইজান।

  • image

    Dr.Mizan Siddiqi

    ০২ এপ্রিল, ২০১৯

    Let him represent his constituency.

  • image

    Nazrul Islam

    ০২ এপ্রিল, ২০১৯

    আরো অনেক আগেই শপথ নিতেন।

  • image

    মোং তাসনিম

    ০২ এপ্রিল, ২০১৯

    এদের কারনে আজকে ঐক্যফ্রন্ট এর এই বেহাল দশা।

  • image

    জুনায়েদ

    ০২ এপ্রিল, ২০১৯

    আহা ক্ষমতা!!

  • image

    Abdul Mannan

    ০২ এপ্রিল, ২০১৯

    এই যদি হয় নেতাদের নৈতিকতা!

  • image

    Istiaque

    ০২ এপ্রিল, ২০১৯

    আইন প্রনেতা যদি দলের সাথে প্রতারণা করে তবে এদের কাছে জনগণ কি আশা করবে? এরা আধুনিক মীরজাফর !

    • image

      নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

      ০২ এপ্রিল, ২০১৯

      কোন জানি এদের কাছে কিছু আশা করে ভাইজান।

  • image

    নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

    ০২ এপ্রিল, ২০১৯

    Welcome to parliament leader.

  • image

    নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

    ০২ এপ্রিল, ২০১৯

    প্যাড চুরি, পুকুর চুরি

  • image

    নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

    ০২ এপ্রিল, ২০১৯

    শপথ নেওয়ার আগেই ‘চুরি’?

  • image

    Md. Kamruzzaman

    ০২ এপ্রিল, ২০১৯

    হায় হায়!

  • image

    ahmed

    ০২ এপ্রিল, ২০১৯

    স্বাধীন বাংলার ইতিহাসে শেষ .....তালিকায় এই দুইজনের নাম লিখা থাকবে ।।

  • image

    তাসলিমা বেগম

    ০২ এপ্রিল, ২০১৯

    গনফোরাম মানেই দেখছি সব গনছুটদের ভাগাড়

সব মন্তব্য