ঐক্যফ্রন্ট নিয়ে ‘মাতামাতি’ পছন্দ না ২০ দলের

সুহাদা আফরিন, ঢাকা ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

২০ দলের বৈঠক। ফাইল ছবিনির্বাচনের পরে একবারই বৈঠক হয় এবং ২০ দল নিয়ে কোনো কর্মসূচিও নেই। অন্যদিকে গত বছর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে গঠিত নতুন জোট জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে সময় সময় বৈঠক হচ্ছে। পাশাপাশি এই জোটের সঙ্গে একের পর এক কর্মসূচিও করছে। নতুন গঠিত ঐক্যফ্রন্টকে নিয়ে বিএনপির এই ‘মাতামাতি’ পছন্দ করছেন না ২০ দলের নেতারা।

বিএনপি একাদশ জাতীয় সংসদে অংশ নেয় দুই জোটকে সঙ্গে নিয়েই। দীর্ঘদিনের জোট ২০ দলকে হাতে রেখে গত বছরের অক্টোবরে গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেনকে আহ্বায়ক করে পাঁচটি দলের সমন্বয়ে গড়ে ওঠে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। নির্বাচনেও এই নতুন জোটের নামেই বিএনপি ও ২০ দল অংশ নেয়। তবে ২০ দলকে ৪০টি আসন এবং ঐক্যফ্রন্টকে ১৯টি আসনে মনোনয়ন দেয় বিএনপি। কিন্তু পুরো জোটে বিএনপি পায় ৬টি আসন এবং গণফোরাম পায় ২টি আসন। বিএনপি ছাড়া ২০ দলের অন্য কোনো শরিক দল কোনো আসন থেকে জয় পায়নি।

সম্প্রতি ২০ দলের শরিক লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) সভাপতি অলি আহমদ বলেছেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময় ঐক্যফ্রন্টের অনেক নেতা সরকারের কাছ থেকে টাকা নিয়েছেন। কোথায় বসে কত টাকা নিয়েছেন, তা–ও তাঁর জানা বলে দলীয় কার্যালয়ে এক অনুষ্ঠানে বলেন অলি আহমদ। তাঁর এই বক্তব্য বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্ট নেতাদের মধ্যে অস্বস্তি তৈরি করেছে। ২০–দলীয় জোটের অনেক শরিকও ঐক্যফ্রন্টের সমালোচনা করছেন প্রকাশ্যেই।

এর মধ্যেই আজ সোমবার সন্ধ্যায় ২০–দলীয় জোটের বৈঠক হতে যাচ্ছে। গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে সন্ধ্যা ৭টায় এই বৈঠক হবে। বৈঠকে বিএনপি ও ২০ দলের নেতারা উপস্থিত থাকবেন।

ঐক্যফ্রন্টের কারণে ২০ দল একটু ঝিমিয়ে পড়েছে বলে উল্লেখ করে বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির (বিজেপি) চেয়ারম্যান আন্দালিব রহমান পার্থ বলেন, বিএনপি এখন ঐক্যফ্রন্ট নিয়ে বেশি ব্যস্ত। ২০ দলের মধ্যে আলোচনার বিষয়ে তিনি বলেন, এটা বিএনপিকেন্দ্রিক জোট। তারাই ভালো জানে, রাজনৈতিক প্রয়োজনে কখন আলোচনা করবে।

খেলাফত মজলিসের মহাসচিব আহমদ আবদুল কাদেরও বলেন, বিএনপি এখন ঐক্যফ্রন্টকে নিয়ে বেশি এগোচ্ছে। এই মুহূর্তে ২০ দলের কোনো তৎপরতা নেই। খেলাফত মজলিসের এই নেতা জানান, ২০ দল নামে মাত্র আছে। তাঁরা এখন নিজেদের দল নিয়ে কাজ করছেন।

গত বছরের ৩০ ডিসম্বরের সংসদ নির্বাচনের পর একবারই ২০ দলকে নিয়ে বৈঠক করে বিএনপি। অন্যদিকে তারা ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে মানববন্ধন কর্মসূচি, গণশুনানিসহ একাধিক বৈঠক করে। গত ২২ ফেব্রুয়ারি ড. কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে গণশুনানি হয়। এতে বিএনপি তার দুই জোটের শরিকদের প্রার্থীদের অংশ নিতে আহ্বান জানায়। ২০ দল থেকে মাত্র দুজন প্রার্থী অংশ নেন। এই জোটের প্রধান কয়েকটি দল এই গণশুনানিতে অংশ নেয়নি। সর্বশেষ খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে গণ–অনশনে ২০ দলের কয়েকটি শরিক দলের নেতা অংশ নেন।

২০ দলের অন্যতম দল লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম প্রথম আলোকে বলেন, ‘ঐক্যফ্রন্টও বিএনপিকে নিয়ে নির্বাচন করেছে, ২০ দলও করেছে। বিএনপির ঐক্যফ্রন্টকে নিয়ে অতিরিক্ত মাতামাতি এবং ২০–দলীয় জোটকে এড়িয়ে চলা—মোটকথা, আমাদের কাছে ভালো লাগেনি।’ তিনি বলেন, এটা দীর্ঘদিনের জোট। বর্তমান পরিস্থিতিতে ২০ দলের মধ্যে সংস্কার হওয়া প্রয়োজন। ২০ দলের মধ্যে পর্যালোচনা করে অনিবন্ধিত ও যাদের তেমন কোনো অবস্থান নেই, তাদের বাদ দিয়ে সংস্কার করা দরকার। তিনি বলেন, এখানে অনেক দল আছে, যারা নামসর্বস্ব। আবার অনেক দল আছে, যারা ঐক্যফ্রন্টের অন্য দলগুলোর চেয়ে অনেক বেশি শক্তিশালী অবস্থানে আছে।

অন্যদিকে ২০–দলীয় জোটের অন্যতম শরিক জামায়াতে ইসলামীর রাজনৈতিক দল হিসেবে তেমন কোনো কর্মকাণ্ড চোখে পড়ে না।

অবশ্য বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সম্প্রতি দুটি কর্মসূচিতে বলেছেন, ২০ দল ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মধ্যে কোনো সমস্যা নেই।

জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ২০ দল ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচন করলেও ঐক্যফ্রন্ট গঠিত হওয়ার পর থেকেই ২০ দলের শরিকদের মধ্যে নতুন জোট নিয়ে ক্ষোভ ছিল। বিএনপি নতুন জোটকেই বেশি প্রাধান্য দিচ্ছে, এমন অভিযোগ তখন থেকেই।

মন্তব্য

  • image

    Shazzadul Islam Sahil

    ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

    হাসাহাসি' কে 'মাতামাতি' নামকরণে সুখ পাওয়া যায়না রে পাগলা!

  • image

    আন্দালিব

    ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

    এণ্টি আওয়ামী চরিত্র সবই এক, আওয়ামীলীগ বিরোধিতাই তাদের চোখে নেক।

    • image

      নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

      ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

      nice কপিতা

  • image

    kranti

    ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

    আপনারা এখন ধরা খাওয়া দল।

    • image

      Z.Rahman

      ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

      আর আপনি মাঝরাতে ব্যালট বাক্স ভরা দল

  • image

    Jalal

    ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

    ঐক্যফ্রন্টের দরকার নেই

    • image

      নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

      ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

      ho ho ho

  • image

    msIqbal

    ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

    দুই ..... সংসার!! একজনের সাথে মাতামাতি আরেক পছন্দ না হবারই কথা!

    • image

      নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

      ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

      ha Ha Ha

  • image

    sams_sohel@yahoo.com

    ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

    ঐক্যফ্রন্ট যে আওয়ামী লীগ এর হয়ে কাজ করছে আর এই অতিসাধারণ কথাটা বিএনপি যত দেরিতে বুজবে ততই আওয়ামীলীগ এর লাভ. মাসে একটা করে গণ অনশন আর সে অনশনে ঐক্যফ্রন্ট এর শরিকরা এসে সুন্দর সুন্দর জ্বালাময়ী বক্তব্য !! এই হলো ঐক্যফ্রন্টের বর্তমান কাজকলাপ!!

  • image

    নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

    ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

    Nice!But------------------------------!

  • image

    নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

    ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

    ড. কামাল আওয়ামী এজেন্ডা নিয়ে কাজ করছে। তাই বিএনপি এখন ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে। বিএনপি রাজনীতি করতে জানে না। ওরা শুধু সুবিধা নিতে জানে।

  • image

    আবুল বাহার

    ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

    দুই সতিনের ঘরে এমনি হয়।একজনের সাথে বেশী লটর পটর আরেক জন পচন্দ কম করবে।

  • image

    নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

    ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

    দেশতো ভালই চলছে। জোটের বৈঠক করে কি করতে চান? এর চেয়ে দেশ ভাল চালাতে পারবেন? মনে হয় না।

    • image

      রাজিব

      ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

      "দেশতো ভালই চলছে", তাহলে ওদের বৈঠক নিয়ে আপনার এত টেনশন কেন ?

    • image

      নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

      ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

      যা.....চলছে রে ভা....ই...

  • image

    নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

    ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

    বিশ্বস্ত বন্ধুকে বিপদে রেখে গাছে উঠে নিজেকে নিরাপদ ভাবা ঠিক নয়। ভল্লুকের সেই গল্প যে পড়েনি সে বন্ধুত্বের গুরুত্ত্ব বোঝে না। জামায়াতের বিপদ দেখে বিএনপি শুধু বলে গেছে বিচার চাই নিরোপেক্ষ বিচার এখন জামায়াত যদি বলে বিচার চাই নিরোপেক্ষ বিচার তাহলে কেমন লাগবে? ব্ন্ধুত্ব হতে হবে ইস্পাত সম শক্ত তবেই বিজয় হবে। ইনশাল্লাহ। ঐক্যফ্রন্ট বালুর বাঁধ ভেঙ্গে গেছে মোকাব্বির আর মনছুরের সাথে। বিশ দল ইস্পাত রয়েগেছে কারগারে আর ফাঁসির সঙ্গে মিলেমিশে নিজ জীবন দিয়ে।

    • image

      জুবায়ের হোসেন

      ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

      যারা দেশের স্বাধীনতায় খুশি না, বাংলাদেশেে থেকে পাকিস্তান পাকিস্তান করে তাদের সবার ফাঁসি হওয়াই ভাল।

  • image

    নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

    ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

    ২০ দলের শরিকদের দাবি যৌক্তিক।

  • image

    রাজিব

    ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

    ২০ দলীয় জোটের বৈঠক হয়েছে, বৈঠকের আলোচ্য বিষয় বাদ দিয়ে রিপোর্টার উদ্দেশ্যমূলক প্রোপাগান্ডা চালাচ্ছেন !

    • image

      নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

      ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

      আপনি কি ভাবছেন যে দেশোদ্ধারের গুরুগম্ভীর ভাবনা ছিলো ওঁদের আলোচ্য বিষয়সূচি? ভুল। নালিশ আর পিএনপিসিই হচ্ছে জোটের/ ঐক্যফ্রন্টের প্রাত্যহিক অভ্যাস।

  • image

    নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

    ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

    নতুনকে নিয়ে মাতামাতি পছন্দ না পুরনো ......! ভাগের টাকা কম হয়ে যাচ্ছে ;-)

  • image

    Noor

    ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

    just wait and see Mr "জামাতি-অনিচছুক", দুই খুনির দল জামায়াত-বিএনপির পরিণাম আরও কিছু দেখার বাকী আছে।ইনশাআল্লাহ

  • image

    নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

    ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

    ঐক্যফ্রন্ট পুরোপুরি ব্যার্থ। ঐক্যফ্রন্টের বেইমানিই বেশি। ২০ দলেই আস্থা রাখা উচিত।

  • image

    নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

    ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

    অলি আহমদ বলেছেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময় ঐক্যফ্রন্টের অনেক নেতা সরকারের কাছ থেকে টাকা নিয়েছেন। যা বোঝার বুঝে নেন জনগণ।

  • image

    জুবায়ের হোসেন

    ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

    কিছু কিছু বাঙ্গালীর জন্য মিডিল ইস্ট এর গণতন্ত্র লাগবে। ওদের লিবিয়া, সিরয়াতে পাঠিয়ে দেওয়া হোক

  • image

    নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

    ০৮ এপ্রিল, ২০১৯

    মোকাব্বির আর মনছুরের বিশ্বাসঘাতকতা ঐক্যফ্রন্টের বিশ্বস্থ্যতা ভেংগে চুরমার করেছে।

সব মন্তব্য