শপথ নিতে বিএনপির চারজন সংসদে

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা ২৯ এপ্রিল, ২০১৯

মো. হারুনুর রশীদ,মো. মোশাররফ হোসেন,মো. আমিনুল ইসলাম, উকিল আবদুস সাত্তার।বিএনপির নির্বাচিত চার সংসদ সদস্য সংসদে প্রবেশ করেছেন। তাঁরা আজ সাংসদ হিসেবে শপথ নেবেন। এই চার জন হলেন– চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনের মো. আমিনুল ইসলাম, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের মো. হারুনুর রশীদ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের উকিল আবদুস সাত্তার ও বগুড়া-৪ আসনের মো. মোশাররফ হোসেন।

আজ সোমবার বিকেলে সোয়া পাঁচটার দিকে এই চারজন সংসদে স্পিকারের দপ্তরে প্রবেশ করেছেন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি থেকে ছয়জন নির্বাচিত হন। এর মধ্যে ঠাকুরগাঁও-৩ আসনের সাংসদ জাহিদুর রহমান শপথ গ্রহণ করেছেন। বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরও নির্বাচিত হয়েছেন। তবে তিনি শপথ গ্রহণ করছেন না।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের হয়ে নির্বাচন করা বিএনপি নির্বাচনকে প্রত্যাখ্যান করে কেউ শপথ গ্রহণ করবে না বলে জানিয়ে এসেছিল।

মন্তব্য

  • image

    শরীফ সাহেদি

    ২৯ এপ্রিল, ২০১৯

    মাশাল্লাহ - আয়হায় ..................।।

  • image

    KAMRUL ALAM

    ২৯ এপ্রিল, ২০১৯

    GOOD JOB 😃

  • image

    Halim

    ২৯ এপ্রিল, ২০১৯

    Welcome

  • image

    শাদনান মাহমুদ নির্ঝর

    ২৯ এপ্রিল, ২০১৯

    সামান্য এমপি হওয়ার লোভ ছাড়তে পারে না এরা নাকি আবার দলের আর মানুষের নেতা হবে। আল্লাহ বাচাইছে বিএনপির এইসব মারাত্নক 'ত্যাগী' নেতাদের হাতে দেশের শাসনভার যায় নাই, এমপি হওয়ার লোভ ছাড়তে পারে না, আর ১০০ কোটি টাকা সামনে দিলে এরা দেশ বেচতেও দুই মিনিট চিন্তা করবে না। লোভী গুলা...

    • image

      নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

      ২৯ এপ্রিল, ২০১৯

      বিএনপি বরাবরই সুবিধাবাদিদের ক্লাব, শীর্ষ নেতাগুলো নির্বাচনে জিতলেও 'আন্দোলনের অংশ' হিসেবে সংসদে যোগ দিতো। তাছাড়া যে দলের শীর্ষ নেতৃত্ব এতিমের টাকার লোভ সামলাতে পারেনা, বিশেষ ভবন বানিয়ে কমিশন বাণিজ্য করে তাদের কাছ থেকে আপনি কোন যুধিষ্ঠির নীতি আশা করেন?

  • image

    Md. Ruhul Amin

    ২৯ এপ্রিল, ২০১৯

    একে একে সবাই করল শুধু মির্জা ফখরুল বাদে উনি করতেন যদি মহাসচিব না হতেন।

  • image

    NAhmed

    ২৯ এপ্রিল, ২০১৯

    সুযোগের স্বদ্ব্যবহার করলেন এই নেতারা। বাস্তবে এটাই তাদের আসল রূপ বা চেহারা। সাংসদ পদে থেকে যা কামাতে পারবে তাই লাভ.

  • image

    আন্দালিব

    ২৯ এপ্রিল, ২০১৯

    ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনটিকে এতটা নিরপেক্ষ হতে না দিয়ে সরকারের উচিত ছিল একটু ইঞ্জিনিয়ারিং করে হলেও আরো কিছু বিএনপি এমপিকে জিতিয়ে আনা, তাতে করে সত্যিকার বিরোধি এমপির সংখ্যাটা আরো বড় হলে সংসদটা আরো প্রানবন্ত হতো।

    • image

      Jiya Hasan

      ২৯ এপ্রিল, ২০১৯

      নিরপেক্ষ !!

    • image

      নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

      ২৯ এপ্রিল, ২০১৯

      লজ্জা নামক যে একটা বস্তু আছে সেটা জানা আছে?

  • image

    Jobaer Mahmud

    ২৯ এপ্রিল, ২০১৯

    এটা তো পুরোনো খবর , আরও নতুন কিছু জানতে চাই।

  • image

    Rashidullah

    ২৯ এপ্রিল, ২০১৯

    ঠিক ই আছে। সংসদে এসেও সরকার পতনের আন্দোলন করা যায়।

  • image

    Ghotok Ferdous. E-mail: abroad2009@gmail.com

    ২৯ এপ্রিল, ২০১৯

    এটা আগে থেকেই অনুমান করেছিলাম। আজকের দিন শেষ হতে এখনও সময় আছে। দেখেন অন্যজনও আসেন কিনা।

  • image

    নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

    ২৯ এপ্রিল, ২০১৯

    এবার বুঝাগেল বিএনপিতে বিশ্বস্ত কেউ নেই ৷ সবাই কোন না কোন সময় বেইমানি করেছে অথবা করবে ৷

  • image

    শাহাদাত হোসাইন সুজন

    ২৯ এপ্রিল, ২০১৯

    আহারে আহা! বিম্পি!!

  • image

    Moshiul Sumon

    ২৯ এপ্রিল, ২০১৯

    Perfect follower of Tarek Rahman, who is always for grab money.

  • image

    Md. Ruhul Amin

    ২৯ এপ্রিল, ২০১৯

    আমাদের গ্রামে একটা কথা আছে, "সেই তো মল খসালি, তবে কেন লোক হাসালি"।

  • image

    Azizul Hoque

    ২৯ এপ্রিল, ২০১৯

    এ শপথ যদি খালেদা জিয়ার মুক্তির বিনিময়ে সরকারের সাথে সমঝোতার ভিত্তিতে হয়, তাহলে খারাপ লাগলেও জনগন সেটা সহ্য করবে কারন বয়স্ক, বৃদ্ধা ও অসুস্থ সাবেক প্রধানমন্ত্রী একাকী বন্দী জীবন যাপন থেকে মুক্তি পাক আমরা সেটা চাই। আর যদি কোন সমঝোতা বিহীন শুধুমাত্র নিজেদের স্বার্থে (তথাকথিত এলাকার জনগনের চাপে) হয়ে থাকে তাহলে বিএনপিকেও জনগন আস্তাকুড়ে নিক্ষেপ করবে, অলরেডি সে রাস্তাতেই আছে দলটি।

  • image

    Md. Mahmudur Rahman

    ২৯ এপ্রিল, ২০১৯

    বিনপি র এই অবস্থা!!!!!!!!!!!!!

  • image

    Md. Mahmudur Rahman

    ২৯ এপ্রিল, ২০১৯

    এই দল ক্ষমতায় গেলে কি হইতো ??????????!!!!!!!!!!!!!!!!!

  • image

    ALAMGIR KABIR

    ২৯ এপ্রিল, ২০১৯

    বিএনপি দল আজ থেকে নিঃশেষ হয়ে গেল এদেরকে কেউ আর বিশ্বাস করবে না,এমনকি যারা বিএনপি সমর্থক ছিলেন তারাও না।

  • image

    নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

    ২৯ এপ্রিল, ২০১৯

    হয়ত প্রবল চাপ উপেক্ষা করতে পারলোনা তারা তবে বিএনপি কিছু লোভি স্বার্থপর নেতা মুক্ত হল।

    • image

      এস দেওয়ান

      ২৯ এপ্রিল, ২০১৯

      দলে বাকি থাকলো কি ?

  • image

    নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

    ২৯ এপ্রিল, ২০১৯

    কোটি টাকা খরচ করে, নমিনেশন কিনে এমপি হয়েছেন উনারা। শপথ না নিয়ে কী ঘোড়ার ঘাস কাটবেন উনারা?

সব মন্তব্য